খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

বুধবার, ২৬শে জুন ২০২৪

সিরিজে সমতা আনলো জিম্বাবুয়ে

0

২য় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ২৩ রানে হারিয়ে সিরিজে ১-১ সমতা আনলো স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে।

হারারেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। ইনিংসের ২য় ওভারের ৫ম বলেই ওপেনার মারুমানিকে দলীয় ১৫ রানে সাজঘরে ফেরান স্পিনার শেখ মেহেদী হাসান। দলীয় ৪২ রানে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রেগিস চাকাভাকে শরিফুলের তালুবন্দী করে সাজঘরে ফেরান সাকিব আল হাসান৷ ৩য় উইকেট জুটিতে ৫৭ রান যোগ করেন ওপেনার ওয়েসলি মাধেভেরে এবং ডিওন মায়ার্স।
মায়ার্স ২১ বলে ২৬ রানে ফিরলেও এক প্রান্ত আলগে রেখে অর্ধশতক তুলে নেন ওয়েলসি মাধেভেরে। শরিফুলের বলে আফিফের ক্যাচ হওয়া পর্যন্ত মাধেভেরে খেলেন ৫৭ বলে ৭৩ রানে ঝলমলে এক ইনিংসে। তার ইনিংসে ছিলো ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ওভার বাউন্ডারি।শেষ দিকে রায়ান বার্লের ১৯ বলে ৩৪ রানের ক্যামিও তে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৬৬ রানের পুঁজি পায় জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেন পেসার শরিফুল। এছাড়া ১টি করে উইকেট শিকার করেন মেহেদী ও সাকিব।
১৬৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা হয় বাজে ভাবে। আগের ম্যাচের দুই হাফ-সেঞ্চুরিয়ান দুই ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম ও সৌম্য সরকার দ্রুত সাজঘরের পথ ধরেন৷ নাঈম ৫ এবং সৌম্য করেন ৮ রান। ১৭ রানে ২ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর বাকীরাও ব্যর্থ হন রানের গতি বাড়াতে, নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ। সাকিব ১২(১০), রিয়াদ ৪(৬), আফিফ ২৪(২৫), সোহান ৯(৮) রান করে সাজঘরে ফেরেন। তবে মাঝে অভিষিক্ত শামীম হোসেন ব্যাট হাতে তার ঝলক দেখান।
ব্যাট হাতে ৩ বাউন্ডারি, ২ ওভার বাউন্ডারিতে ১৩ বলে ২৯ রানের ধুমধাড়াক্কা এক ইনিংস খেলে আউট হন তিনি। শেষ দিকে অলরাউন্ডার সাইফুদ্দিন ১৫ বলে ১৯ রান করায় বাংলাদেশের হারের ব্যবধান কিছুটা কমায়। তবে ম্যাচের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারেননি। সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৯.৫ ওভারে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ১৪৩। জিম্বাবুয়ের হয়ে মাসাকাদজা এবং জংওয়ে ৩ টি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়া চাতারা এবং মুজারাবানি শিকার করেন ২ টি করে উইকেট। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ওয়েসলি মাধেভেরে। এই জয়ে সিরিজ ১-১ সমতায় আনলো জিম্বাবুয়ে। ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে সিরিজ নির্ধারনী শেষ টি-টোয়েন্টি।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

জিম্বাবুয়ে: ২০ ওভারে ১৬৬/৬ (মারুমানি ৩, মাধেভেরে ৭৩, চাকাভা ১৪, মায়ার্স ২৬, রাজা ৪, বার্ল ৩৪*, জঙ্গুয়ে ২; তাসকিন ৪-০-২৮-০, মেহেদি ১-০-১১-১, শরিফুল ৪-০-৩৩-৩, সাইফ ৪-০-৩৬-০, সাকিব ৪-০-৩২-১, সৌম্য ২-০-১৬-০, শামীম ১-০-৭-০)।

বাংলাদেশ: ১৯.৫ ওভারে ১৪৩ (নাঈম ৫, সৌম্য ৮, মেহেদি ১৬, সাকিব ১২, মাহমুদউল্লাহ ৪, আফিফ ২৪, সোহান ৯, শামীম ২৯, সাইফ ১৯, তাসকিন ৫, শরিফুল ০*; রাজা ৩-০-২২-০, চাতারা ৪-০-২৪-২, মুজারাবানি ৪-০-২১-২, মাসাকাদজা ৪-০-২০-৩, জঙ্গুয়ে ৩.৫-০-৩১-৩, মাধেভেরে ১-০-১৬-০,)।

ফল: জিম্বাবুয়ে ২৩ রানে জয়ী।

 

 

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy