খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

মঙ্গলবার, ২১শে মে ২০২৪

রেকর্ড গড়ে এজবাস্টন টেস্ট জয় ইংল্যান্ডের

0

গেল বছর ইংল্যান্ড বনাম ভারতের পাঁচ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচটি করোনার কারণে স্থগিত হলে, ঠিক এক বছর পরে অবশেষে এজবাস্টনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সিরিজের পঞ্চম তথা শেষ টেস্টটি।

২-১ ব্যবধানে সিরিজে এগিয়ে থাকা ভারত, সিরিজের শেষ টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হারে ৭ উইকেট। শুধু তাই নয় এজবাস্টন টেস্টে রীতিমতো রেকর্ড গড়ে ম্যাচ জিতেছে ইংলিশরা।

২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩৫৯ রান তাড়া করে জিতেছিল ইংল্যান্ড। এর চেয়ে বেশি রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড নেই ইংল্যান্ডের। তবে এবার কোহলিদের বিপক্ষে ৩৭৮ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করে নতুন রেকর্ড গড়েই থামলেন রুট-বেয়ারস্টোরা।

এজবাস্টনে চতুর্থ দিনে ভারতের দেওয়া ৩৭৮ রানের লক্ষ্য ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে দুই ইংলিশ ওপেনার এল্যাক্স লীস ও জ্যাক ক্রাউলি। দুইজনের আক্রমণাত্বক ব্যাটিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে উদ্বোধনী জুটিতে ১০৭ রান যোগ করে ইংল্যান্ড।

এরপর ভারতীয়দের হয়ে ইংলিশ শিবিরে জোড়া আঘাত হানে অধিনায়ক জসপ্রীত বুমরা। বুমরার বলে আউট হয়ে ওপেনার ক্রাউলি ও ওয়ান ডাউনে নামা পোপ সাজঘরে ফিরলে, এদিকে আরেক ওপেনার এল্যাক্স লীসও ফিরেন রান আউট হয়ে। ফলে মাত্র দুই রানের ব্যবধানে তিন উইকেট হারায় অধিনায়ক বেন স্টোকস এর দল।

অধিনায়ক জসপ্রীত বুমরার জোড়া আঘাত

এমন অবস্থায় ব্যাট করতে নেমে চাপে পড়া দলের হাল ধরেন দুই ইংলিশ ব্যাটার জো রুট ও জনি বেয়ারস্ট’র। শেষ পর্যন্ত দুইজনের অবিচ্ছিন্ন ২৬৯ রানের জুটিতে ৭ উইকেট জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। যা কিনা টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে চতুর্থ উইকেটে সর্বোচ্চ রানের জুটি । ১৯৭৮ সালে গায়ানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় অস্ট্রেলিয়ার গ্রায়েম উড ও ক্রেইগ সার্জেন্টের ২৫১ রানের জুটি ছিল আগের রেকর্ড।

১৪৫ বলে ১৫ চার ও একটি ছক্কায় ১১৪ রানে অপরাজিত থাকেন বেয়ারস্টো। এই সিরিজে চতুর্থ সেঞ্চুরিতে রুট ১৭৩ বলে ১৯ চার ও একটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ১৪২ রান।

এর আগে এজবাস্টনে ব্যাটে-বলে দাপট দেখিয়ে প্রথম ইনিংস শেষে ১৩২ রানে এগিয়ে থাকা ভারত, দ্বিতীয় ইনিংসে পুজারা আর রিশাভ পান্তের হাফ সেঞ্চুরির ওপর ভর করে শেষ ২৪৫ রানে থামে তারা। ইংলিশ অধিনায়ক বেন স্টোকস নেন ৪ উইকেট। ২ উইকেট নেন স্টুয়ার্ট ব্রড এবং ম্যাথিউ পটস। ১টি করে উইকেট নেন জেমস অ্যান্ডারসন এবং জ্যাক লিচ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত ১ম ইনিংস: ৪১৬

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ২৮৪

ভারত ২য় ইনিংস: ২৪৫

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৩৭৮) ৭৬.৪ ওভারে ৩৭৮/৩ (আগের দিন ২৫৯/৩) (রুট ১৪২, বেয়ারস্টো ১১৪; বুমরাহ ১৭-১-৭৪-২, শামি ১৫-২-৬৪-০, জাদেজা ১৮.৪-৩-৬২-০, সিরাজ ১৫-০-৯৮-০, শার্দুল ১১-০-৬৫-০)

ফল: ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy