খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

শনিবার, ২০শে জুলাই ২০২৪

পাঁচ মিনিটের ঝড়ে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি

0

রোমাঞ্চকর রাতের লড়াইয়ের শেষে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ান ম্যানচেস্টার সিটি। দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও পাঁচ মিনিটের ঝড়ে দুর্দান্ত কামব্যাকে অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে লিভারপুলের থেকে ১ পয়েন্টে এগিয়ে টানা দ্বিতীয়বার প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ঘরে তুললো সিটিজেনরা।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দীর্ঘ ৯ মাসের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের শেষে শিরোপা নির্ধারণ হয়েছে লিগের ৩৮তম ম্যাচে এসে। ৩৭তম ম্যাচে ৯০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ছিল ম্যানচেস্টার সিটি, সমান ম্যাচে ৮৯ পয়েন্ট নিয়ে সিটির ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছিল লিভারপুল। এমন পরিস্থিতিতে লিগের শেষ ম্যাচে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ঘরের মাঠ ইতিহাদে মাঠে নামে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি।

ছন্দহীন ফুটবলে ম্যাচের প্রথমার্ধের ৩৭ মিনিটে ম্যাটি ক্যাশের গোলে নিজেদের মাঠে পিছিয়ে পড়ে ম্যানসিটি। এখানেই শেষ নয়। ম্যানচেস্টারের ক্লাবটির বিপদ আরও ঘণীভূত হয় যখন ৬৯ মিনিটে সাবেক লিভারপুল প্লে-মেকার ফিলিপে কুতিনহো গোল করে অ্যাস্টন ভিলার লিড দ্বিগুণ হয়।

পয়েন্ট টেবিলে তখন ম্যানসিটি আর লিভারপুল সমান ৯০ পয়েন্ট নিয়ে থাকলেও সিটিজেনরা গোল ব্যবধানে এগিয়ে ছিল। কিন্তু লিভারপুল যেকোনোভাবে নিজেদের ম্যাচে লিড নিলে তারাই এগিয়ে যেতো শিরোপা দৌড়ে।

এরপরেই ম্যানসিটির বাজিমাত। ম্যাচের ৫ মিনিটের মধ্যে ৩ গোল করে শিরোপা জিতে নেয় ম্যানসিটি। ৭৬ মিনিটে ইলকে গুনদোগান গোল করে ব্যবধান কমান। ৭৮ মিনিটে রদ্রির গোলে সমতা ফেরায় সিটি। আর ৮১ মিনিটে গুনদোগান তার জোড়া গোল পূর্ণ করলে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে যায় গার্দিওলার শিষ্যরা। শেষ পর্যন্ত এই ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা। নিশ্চিত করে লিগ শিরোপা।

অন্যদিকে ম্যাচের প্রথমার্ধের তিন মিনিটে গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়লেও লিভারপুল। সাদিও মানের গোলে ম্যাচের ২৪ মিনিটেই সমতায় ফেরে অলরেডরা। এরপর বিরতির পর মাঠে নামেন লিভারপুলের মোহাম্মদ সালাহ। ৮৪ মিনিটে সালাহ গোল করে ব্যবধান বাড়ান। আর শেষ মুহূর্তে অ্যান্ডি রবার্টসন গোল করে ৩-১ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করেন। কিন্তু এই জয়ের পরও ১ পয়েন্টের ব্যবধানে রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যদের।

৩৮ ম্যাচ শেষে সিটির পয়েন্ট দাঁড়ালো ৯৩। লিভারপুলের পয়েন্ট ৯২। চেলসি ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে হলো তৃতীয়। ৭১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ হলো টটেনহ্যাম। ৩৮ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে ৬ষ্ঠ হলো ম্যানইউ।

 

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy