খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

বুধবার, ৬ই ডিসেম্বর ২০২৩

ইমরুল – মুশফিকে ‘এ’ দলের দারুন জয়

0

যেকারনে বাংলাদেশ এ দলের হয়ে মাঠে নামলেন মুশফিকুর রহিম, এইচপি ইউনিটের বিপক্ষে তার শতভাগ কাজে লাগালেন মিস্টার ডিপেনডেবল। তার অপরাজিত সত্তর রানে ভর করে এইচপি ইউনিটের বিপক্ষে ৬ উইকেটের স্বস্তির জয়ও পেলো মুমিনুল হকের দল।

সকালে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে এইচপিকে ব্যাটিংএ পাঠায় বাংলাদেশ এ দল। ইনিংসের শুরুতে ওপেনার পারভেজ ইমন আউট হয়ে গেলেও আরেক ওপেনার তামিম এক প্রান্ত আগলে রেখে জয় এর সাথে গড়েন ১৩১ রানের জুটি। ৩৮ রানে জয় আউট হয়ে গেলেও তামিম করেন ৯৩ বলে ৮১ রান।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে ৫১ রান যোগ করেন আকবর ও দীপু। ব্যক্তিগত ৫১ রানে আউট হন দীপু। অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ২৮(আটাশ) রান। শেষ পর্যন্ত ইনিংসের ৭ বল বাকী থাকতে সবকটি উইকেট হারিয়ে এইচপি দল সংগ্রহ করে ২৪৭ রান।

২৪৮ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ এ দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়ে ২৭ রানে সাজঘরে ফেরেন শান্ত। এরপর দলের হাল ধরেন জাতীয়দলের সাবেক ওপেনার বাহাতি ইমরুল কায়েস আর অধিনায়ক মুমিনুল হক। ৬০ রান করে আউট হন ইমরুল, মুমিনুল করেন ২৯ রান। শেষ দিকে মুশফিক অপরাজিত থাকেন সত্তর রানে৷ যাতে ছিলো ৬টি চার ও ১টি ছয়। এমন ব্যাটিং টিটোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে নিশ্চই আত্মবিশ্বাস আরো বাড়াবে মুশফিকের।

একই ভেনুতে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

হাই-পারফরম্যান্স ইউনিট

৪৮.৫ ওভারে ২৪৭/১০ (তানজিদ হাসান ৮১, শাহাদত হোসেন ৫১, মাহমুদুল হাসান ৩৮; মোসাদ্দেক হোসেন ৪/৩১, রুবেল হোসেন ২/৩২)

বাংলাদেশ ‘এ’ দল

৪৭.৫ ওভারে ২৫২/৪ (মুশফিকুর রহিম ৭০*, ইমরুল কায়েস ৬০; সুমন খান ২/৫২)

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy