খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

মঙ্গলবার, ২৮শে মে ২০২৪

শ্রীলঙ্কার নামিবিয়া ট্রাজেডি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

0
কদিন আগেই সবাইকে চমকে দিয়ে এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হয় শ্রীলঙ্কা। ক্রিকেট বিশ্লেষকরা ধরেই নিয়েছিল লঙ্কান ক্রিকেটের পুনর্জন্ম বুঝি এইতো শুরু। সেই শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অষ্টম আসর শুরু করলো পুছকে নামিবিয়া। বিশ্বকাপের মূল পর্বে উঠার লড়াইয়ের ম্যাচে ৫৫ রানে শ্রীলঙ্কাকে হারায় তারা।

 

অস্ট্রেলিয়ার সিমন্ডস স্টেডিয়ামে টসে জিতে নামিবিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন সানাকা। শুরুতে দ্রুত উইকেট হারালেও ঠিকই শ্রীলঙ্কার সামনে ১৬৪ রানের দারুণ চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় আফ্রিকান দেশটি।

দলীয় ৬ রানে ভ্যান লিঙ্গেনকে দিয়ে প্রথম উইকেট হারায় তারা। এতে বিশ্বকাপের প্রথম উইকেটটি তুলে নেন শ্রীলঙ্কান পেসার ধুশমন্ত চামিরা। তবে একের পর এক ব্যাটারের বিদায়ের পর ম্যাচের হাল ধরেন স্টিফেন বার্ড ও গেরহার্ড এরাসমাস জুটি। দুইজনের পার্টনারশিপ থেকে আসে ৪১ রান। ২০ রান করেন এরাসমাস।

ইনিংস শেষে জোহানেস স্মিতের ঝড়ো ১৬ বলে ৩১ ও ইয়ান ফ্রাইলিংকের ২৮ বলে ৪৪ রানে ভর করে ৭ উইকেটে তাদের স্কোরবোর্ডে দাড়ায় ১৬৩ রান।

১৬৪ রান তাড়া করতে নেমে শ্রীলঙ্কা শুরুটা একেবারেই ভাল করেনি। দুই ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা (৯) ও কুশল মেন্ডিস (৬) রানের মধ্যেই সাজঘরে ফেরেন। ৪০ রানে চার উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে লঙ্কানরা। ভানুকা রাজাপাকসে (২০) ও লঙ্কান অধিনায়ক শানাকা (২৯) একটু লড়াই করার চেষ্টা করেন বটে, তবে তাতে খুব বেশি লাভের লাভ কিছুই হয়নি!

এশিয়ান চ্যম্পিয়নদের হয়ে রাজাপাকসে এবং শানাকা বাদে মাত্র দুইজন ব্যাটারই দুই অঙ্কের রান করতে পেরেছেন।

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy