খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

রবিবার, ১৪ই জুলাই ২০২৪

দাপুটে জয়ে সিরিজ নিশ্চিত টাইগারদের

0

দাপুটে জয়ে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিজেদের করে নিল বাংলাদেশ দল। সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে তে আফগানদের ৮৮ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় তামিম ইকবালের দল।

আগে ব্যাট করতে নেমে মুশফিক-লিটনের রেকর্ড জুটিতে ৪ উইকেটে ৩০৬ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। জবাবে ইনিংসের ২৯ বল বাকি থাকতেই ২১৮ রানে অলআউট হয়ে যায় আফগানরা।

এই জয়ে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ সুপার লিগের প্রথম দল হিসেবে ১০০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশ।

সকালে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে তামিম ইকবালের দল। আগে ব্যাট করতে নেমে ৩৮ রানে ভাঙে টাইগারদের উদ্বোধনী জুটি। আফগান পেসার ফজল হক ফারুকীর করা বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে মাত্র ১২ রান করে সাজ ঘরে ফিরেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

এরপর দ্বিতীয় উইকেটে ব্যাট করতে নেমে ২০ রান করে রশিদ খানের বলে আউট হয়ে সাকিব আল হাসান বিদায় নিলে তৃতীয় উইকেট লিটন-মুশফিক নিলে গড়েন ২০২ রানের রেকর্ড জুটি।

ক্যারিয়ারের পঞ্চম শতক পূরণ করে ১২৬ বলে ১৩৬ রান করে লিটন ও ৯৩ বলে ৮৬ রান করে মুশফিকুর রহিম সাজ ঘরে ফিরলে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে টাইগারদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ৩০৬ রান। অন্যদিকে আফগানদের হয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন ফরিদ আহমেদ।

জবাবে বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ১ রান করে রান আউট হন আফগান ওপেনার রিয়াজ হাসান। এরপর মাত্র ৫ রান করে দলনেতা হাশমতউল্লাহ শহিদি ও ৯ রান করে আজমতউল্লাহ ওমরজাই আউট হয়ে গেলে দলীয় ৩৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আফগানিস্তান।

দলের হাল ধরতে চতুর্থ উইকেটে রহমত শাহ ও নাজিবুল্লাহ জাদরান মিলে গড়েন ৮৯ রানের জুটি। দুজনেই পূরণ করেন ফিফটি। এরপর নিজের দ্বিতীয় স্পেলে বল করতে আসা টাইগার পেসার তাসকিন আহমেদের বলে ফেরেই এই দুই ব্যাটার। ওপেনার রহমত শাহ তাসকিনের বলে বোল্ড হওয়ার আগে করেন ৫২ রান। আর ৫৪ রানে কটবিহাইন্ড হন নাজিবউল্লাহ জাদরান।

এরপর শেষ দিকে রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী কিছু প্রতিরোদ গড়ার চেষ্টা চালালেও শেষ ভরসা হয়নি তাদের। ৩২ রান করে নবী ও ২৯ রান করে রশিদ খান সাজ ঘরে ফিরলে ৪৫.১ ওভারে ২১৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় আফগানিস্তান।

এদিকে টাইগারদের হয়ে তাসকিন আহমেদ ও সাকিব আল হাসান নেন দুটি করে উইকেট। শরিফুল, মেহেদী ও মুস্তাফিজ একটি করে উইকেট শিকার করেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy