খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

সোমবার, ২৭শে মে ২০২৪

বাংলাদেশকে উড়িয়ে এশিয়ান কাপে মালয়েশিয়া

0

এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে নিজেদের শেষ ম্যাচেও হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ দল। গ্রুপ পর্বে বাহরাইন, তুর্কমেনিস্তানের পর এবার স্বাগতিক মালয়েশিয়া বিপক্ষে হেরেছে ৪-১ গোলে।

মঙ্গলবার কুয়ালালামপুরের বুকিত জলিল ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকে প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে মালয়েশিয়া। আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে ম্যাচের ১০ মিনিটের মধ্যেই নিশ্চিত গোলের সুযোগ তৈরি করলেও স্বাগতিকরা। সেই যাত্রায় গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকোর দুর্দান্ত সেভ এ রক্ষা পায় বাংলাদেশ দল।

তবে নিজেদের প্রথম গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি মালয়েশিয়ানদের। ম্যাচের ১৫ মিনিটে বক্সে নিজেদের মধ্যে বল দেওয়া-নেওয়া করতে ব্যস্ত ছিলেন বাংলাদেশের ডিফেন্ডাররা। ইয়াসিন আরাফাতের পাস নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেননি আতিকুর রহমান ফাহাদ। স্লাইডে ক্লিয়ার করতে গিয়ে ফাউল করে বসেন ফয়সাল হালিমকে। তাতে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।

এরপর স্বাগতিকদের হয়ে পেনাল্টি গোল করে দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন সাফাই রসিদ। পিছিয়ে পড়লেও বাংলাদেশ ম্যাচে ফেরার চেষ্টা চালাতে থাকে বেশ। যার ফলশ্রুতিতে ১৬ মিনিটে পেনাল্টি গোলে পিছিয়ে পড়া লাল-সবুজ জার্সিধারীরা ম্যাচে ফিরেছিল ৩২ মিনিটে। বিশ্বনাথের লং থ্রোয়ে রাকিবের ব্যাক হেডের পর মোহাম্মদ ইব্রাহিমও হেডেই জাল খুঁজে নেন। তুর্কমেনিস্তান ম্যাচেও একইভাবে গোল পেয়েছিলেন জাতীয় দলের এই উইঙ্গার।

সমতায় ফিরে বুকিত জলিল স্টেডিয়ামে ম্যাচে ফিরে ১২ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশিদের আনন্দে ভাসিয়েছিল জামাল ভূঁইয়ারা; কিন্তু সে আনন্দ বেশিক্ষণ থাকেনি। ৫ মিনিট পরই মালয়েশিয়াকে এগিয়ে দেন দিওন কুলস। ফলে ২-১ গোলে পিছিয়ে পড়ে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ দল।

বিরতির পর ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে অগোছালো ফুটবলে আরও দুই গোল হজম করে জামাল ভূঁইয়ারা। স্বাগতিকদের হয়ে বাকি দুই গোল করেন শফিক আহমেদ ও ড্যারেন লক। ফলে এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে বাহরাইন, তুর্কমেনিস্তানের পর এবার মালয়েশিয়া বিপক্ষে ৪-১ গোলে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় বাংলাদেশ দল।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy