খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

বুধবার, ১৭ই এপ্রিল ২০২৪

অনূর্ধ্ব–১৯ ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের মেয়েদের জয়

রাবেয়ার অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে টানা দ্বিতীয় জয় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব–১৯ দলের

কক্সবাজারে শনিবার পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় ৩৬ রানে। টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪ উইকেটে ১৩৬ রান করে স্বাগতিকরা। লক্ষ্য তাড়ায় ৭ উইকেটে ১০০ রানের বেশি করতে পারেনি সফরকারীরা।

এদিন বাংলাদেশের ব্যাটারদের কেউ বড় রান করতে না পারলেও, সবাই খেলেন কার্যকর ইনিংস। ব্যাটিংয়ে নামা পাঁচ ব্যাটারের চার জনই স্পর্শ করেন দুই অঙ্ক।

চতুর্থ ওভারে ইভাকে (১ চারে ৬) হারায় বাংলাদেশ। এরপর ৪২ রানের জুটি গড়ে দলকে কক্ষপথে রাখেন সুমাইয়া আক্তার সুবর্ণা ও আরবিন তানি। ২ চারে ২৪ রান করে বিদায় নেন সুবর্ণা, ৩ চারে আরবিন করেন ৩০ বলে ৩১।

এরপর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দলের রান বাড়ান সুমাইয়া আক্তার। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে ৪টি চারে তার ব্যাট থাকে আসে ২৪ বলে ৩২ রান। সুমাইয়ার সঙ্গে ৪৬ রানের জুটি গড়ার পথে ৩ চারে ২৩ বলে ২৩ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন রাবেয়া।

রাবেয়া পরে বল হাতেও দেখান ঝলক। মিতব্যয়ী বোলিংয়ে ৪ ওভারে স্রেফ ১০ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট। এই অলরাউন্ড পারফরম্যান্স তাকে এনে দেয় ম্যাচ সেরার পুরস্কার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দলের জয়ে ১৩ রানে ৩ উইকেট নিয়ে সেরা হয়েছিলেন তিনি।

পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সেরা বোলার অবশ্য আফিয়া আসিমা ইরা। ৪ ওভারে ১২ রান দিয়ে তার শিকার ২ উইকেট, করেছেন একটি মেডেন ওভারও। ১৭ রান দিয়ে একটি উইকেট প্রাপ্তি ফারিয়া আক্তারের।

রান তাড়ায় অবশ্য পাকিস্তানের শুরুটা ছিল আশা জাগানিয়া। আয়মান ফাতিমা ও সামিয়া আফসারের ৫১ রানের উদ্বোধনী জুটিতে তারা পায় শক্ত ভিত। ৩ চারে ২৫ রান করা সামিয়াকে বোল্ড করে প্রতিরোধ ভাঙেন আফিয়া।

কয়েক ওভার পর আরেক ওপেনার ফাতিমার স্টাম্প ভেঙে দেন রাবেয়া। ১ ছক্কা ও ৫ চারে ৩৯ রান করেন ফাতিমা। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর খেই হারিয়ে ফেলে পাকিস্তান। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নিয়মিত উইকেট নিয়ে তাদেরকে আটকে দেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পরের ম্যাচ রোববার, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। এর একদিন পর লঙ্কানদের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy