খেলার মাঠে সবার আগে
Nsports-logo

মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল ২০২৪

তোরেসের হ্যাটট্রিকে বার্সার রোমাঞ্চকর জয়

ফেরান তোরেসের হ্যাটট্রিকে রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে ২-৪ গোলের রোমাঞ্চকর এক জয় পেল বার্সেলোনা। যদিও ম্যাচে বার্সা প্রথমার্ধে দুই গোলে এগিয়ে গেলেও বিরতির পর মাত্র তিন মিনিটের মধ্যে দুবার তাদের জালে বল পাঠিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন বেতিসের ইসকো। কিন্তু শেষ সময়ের দুই গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে জাভির শিষ্যরা।

রবিবার রাতে রিয়াল বেতিসের মাঠে ২১তম মিনিটে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। ইলকাই গুনদোগানের শটে বল বেতিসের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে দিক পাল্টে যায় বক্সে পেদ্রির কাছে। তার পাস ছয় গজ বক্সের মুখে পেয়ে অনায়াসে জালে পাঠান অরক্ষিত তরেস।

বিরতির আগে লেভানদোভস্কিও জালে বল পাঠিয়ে গোল পাননি। অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান। ভিএআরেও বহাল থাকে সেই সিদ্ধান্ত।

তরেস দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্যবধান বাড়ান। ইয়ামাল সঙ্গে লেগে থাকা প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারকে পেছনে ফেলে ডান দিক দিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন। বাইলাইনের কাছ থেকে তার শট পোস্টে লাগার পর বাঁ পায়ের শটে জালে পাঠান তরেস।

তবে ৫৬ থেকে ৫৯ মিনিট- এই সময়ের মধ্যে বার্সার জালে দুবার বল পাঠিয়ে সমতা ফেরান ইসকো। প্রথমে বেতিসের একটি ক্রস পাঞ্চ করে ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেননি পেনা। বক্সের ভেতর থেকে বুলেট গতির হাফ ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন ইসকো। কিন্তু বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা রেফারিকে ঘিরে ধরেন। গোলের আগে পেদ্রি মাঝমাঠে ফাউলের শিকার হয়েছিলেন বলে দাবি জানান তারা। ডি ইয়ং দেখেন হলুদ কার্ড।

সেই রেশ না কাটতেই দ্বিতীয় গোলটি করেন ইসকো। অনেকটা ওপরে পা তুলে গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে পাঠান তিনি। যেখানে লাইন্সম্যান শুরুতে অফসাইডের পতাকা তোলেন। ভিএআর রিপ্লেতে দেখা যায়, অফসাইডের ছিলেন বেতিসের একজন, তবে বল ইসকোর কাছে যাওয়ার সময় তিনি স্পর্শ করেননি।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে তরেসের সঙ্গে ওয়ান-টু খেলে চমৎকার নিচু শটে পোস্ট ঘেঁষে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড হোয়াও ফেলিক্স। ম্যাচের যোগ করা সময়ে হ্যাটট্রিক পূরণের পাশাপাশি দলের জয় নিশ্চিত করেন তরেস। যেখানে বড় অবদান রাখেন ইয়ামাল। তার দারুণ থ্রু বল ধরে চিপ শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

লিগে ২০ ম্যাচে ১৩ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে বার্সেলোনা। রিয়াল মাদ্রিদ ৫১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। তাদের সমান ২০ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে জিরোনা। ২১ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে আছে রিয়াল বেতিস।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy